Education - Thu, 02 September, 2021

স্টুডেন্টরা কুইজ কেনো খেলবে?

প্রায় এক যুগ আগে ফেরদৌস বাপ্পির হাত ধরে বিটিভির পর্দায় “কুইজ কুইজ” অনুষ্ঠানটির মাধ্যমে বাংলাদেশে কুইজিং পরিচিতি লাভ করে। খুবই অল্প সময়ে জনপ্রিয়তার শীর্ষে উঠে আসে এই অনুষ্ঠানটি। এর সাথে ধীরে ধীরে জনপ্রিয়তা পেতে থাকে কুইজ প্রতিযোগীতা এবং অলিম্পিয়াডগুলো। এর কারণ হলো শিক্ষার্থী এবং অভিভাবকগণ দ্রুত কুইজ খেলার গুরুত্ব অনুধাবন করতে পেরেছিলেন।

আপাতদৃষ্টিতে কুইজিংকে একটি সাধারণ খেলা মনে হলেও গবেষকদের মতে কুইজ স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে। ক্লাসে কোন একটি বিষয়ে পড়ানো শেষে যদি সেই বিষয়ের উপর কুইজ নেয়া হয়, তাহলে সেই ক্লাসের পড়া মনে রাখার হার বেড়ে যায় কয়েক গুণ। কুইজ শিক্ষার্থীদের যেকোনো বিষয়ে কি, কেন, কোথায়, কিভাবে ইত্যাদি প্রশ্ন করতে শিখায়। অর্থাৎ, কুইজ খেলার পুরো এক্সপেরিয়েন্সটি মূলত একটি কম্প্রিহেনসিভ লার্নিং এক্সপেরিয়েন্স। এটি কার্যকরীভাবে শিক্ষার্থীদের মাঝে জানার আগ্রহ সৃষ্টি করে এবং তাদের জ্ঞানের পরিসীমাকে বৃদ্ধি করে।

কুইজ খেলার এতো সুফলের কথা বিবেচনা করে গত ২৩শে আগস্ট আপস্কিল ক্লাসরুম যাত্রা শুরু করে তাদের কুইজ প্ল্যাটফর্মের। যাত্রা শুরুর প্রথম দিনেই ৫৫১ জন ক্ষুদে শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করে বিভিন্ন বিষয়ের কুইজে। প্ল্যাটফর্মটিতে রয়েছে ক্লাস ওয়ান থেকে ক্লাস ফাইভ পর্যন্ত এইচটিএমএল, পাইথন, সিএসএস ইত্যাদি ভাষায় কোডিং থেকে শুরু করে রোবটিক্স, সাইন্স, ম্যাথমেটিক্স, ফসিল, অ্যাস্ট্রোনমি, লাইফ সার্কেল, মিনারেলস, প্রেজেন্টেশন, গ্রামার ইত্যাদি সকল বিষয়ে কুইজের সংগ্রহ। নিত্যনতুন বিষয়ে কুইজ সংযোজনের মাধ্যমে এই সংগ্রহ প্রতিনিয়ত আরো বড় হচ্ছে। দেশে STEM (Science, Technology, Engineering, and Mathematics) শিক্ষা প্রচারের লক্ষ্য বাস্তবায়নে প্ল্যাটফর্মটিতে আলাদাভাবে জোর দেয়া হয়েছে STEM বিষয়ক কুইজের ওপর। কুইজগুলোতে রয়েছে একাধিক লেভেল, যা এই লার্ণিং এক্সপেরিয়েন্সকে করে তুলবে আরো আনন্দদায়ক এবং প্রতিযোগিতামূলক।

ক্লাসরুম টিম বিশ্বাস করে কুইজ প্ল্যাটফর্মটি শিক্ষার্থীদের জানার আগ্রহকে বৃদ্ধি করে জ্ঞানের পরিধি বাড়াতে সহায়তা করবে। ফলস্বরূপ শিক্ষার্থীরা বইমুখী হবে এবং ইন্টারনেটকে শেখার কাজে ব্যবহারে আরও আগ্রহী হয়ে উঠবে।

কুইজ খেলতে ভিজিট করুন: https://upskillclassroom.com/quiz